পাকিস্তান সীমান্তে ভারতের ‘হামলা’, নওয়াজের নিন্দা

পাকিস্তান সীমান্তে ভারতের ‘হামলা’, নওয়াজের নিন্দা

 

পাকিস্তান সীমান্তের নিয়ন্ত্রণ রেখায় (লাইন অব কন্ট্রোল) সার্জিক্যাল স্ট্রাইক (সুনির্দিষ্ট টার্গেটে হামলা) চালিয়েছে ভারতীয় সামরিক বাহিনী। এতে বেশ কিছু প্রাণহানি হয়েছে।

 

বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাতে এ হামলা চালানো হয়। বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) সংবাদ সম্মেলন করে এ দাবি করেছে ভারতীয় সেনাবাহিনী।

 

ভারতের নিরাপত্তা বিশ্লেষক নিতিন গোখালে তার এক টুইটার বার্তায় বলেন, হামলায় শত্রুদের ৫টি ক্যাম্প ধ্বংস হয়ে গেছে। বেশ কিছু হতাহতও হয়েছে।

 

এদিকে, এ সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের নিন্দা জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। তিনি বলেছেন, ‘আমরা পাকিস্তানের প্রতিরক্ষা নিশ্চিতে প্রস্তুত’।

 

অন্যদিকে পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যমে দাবি করা হয়েছে, নিয়ন্ত্রণ রেখায় ভারতীয় বাহিনীর সঙ্গে গোলাগুলিতে দুই পাকিস্তানি সৈন্য নিহত হয়েছে। বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাতভর এ গোলাগুলি হয়।

 

সংবাদমাধ্যম জানায়, সন্ধ্যায় কাশ্মীরের পুঞ্চ এলাকার সাউজিয়ান সেক্টরে প্রায় ৮ মিনিট ধরে দুই বাহিনীর মধ্যে গোলাগুলি চলে। দু’পক্ষই মর্টারের গোলা ও গুলিবিনিময় করে। এরপর রাতে আবারও দু’পক্ষের মধ্যে দুই দফায় গোলাগুলি হয়। এতে এ দুই সৈন্যের প্রাণহানি হয়। তবে ভারতীয় পক্ষের কেউ মারা গেছে কিনা সে বিষয়ে কেউ জানা যায়নি।

 

গত ১৮ সেপ্টেম্বর কাশ্মীরের উরি সেনাঘাঁটিতে সন্ত্রাসী হামলা ১৮ ভারতীয় সৈন্য নিহত হওয়ার প্রেক্ষিতে নয়াদিল্লি-ইসলামাবাদ সম্পর্কে উত্তেজনা এখন চরমে। দু’পক্ষই সীমান্তে সেনা মোতায়েন ও তৎপরতা বাড়িয়েছে। দফায় দফায় যুদ্ধবিমানের মহড়া চালাচ্ছে পাকিস্তান। আর ভারতও প্রস্তুত করছে তাদের যুদ্ধবিমানকে।

 

দু’পক্ষের মধ্যে বাকযুদ্ধের মধ্যে মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) ভারতের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় জানায়, ইসলামাবাদে অনুষ্ঠেয় সার্ক শীর্ষ সম্মেলন বয়কট করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

উৎসঃ   বাংলানিউজ24

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

Skip to toolbar