নতুন বছরে স্ত্রীর নিকট স্বামীর আবেদনপত্র।

নতুন বছরে স্ত্রীর নিকট স্বামীর আবেদনপত্র।
Views:
4

 

বরাবর

প্রিয়তমা স্ত্রী,

 

বিষয় : নতুন বছরে কিছু পুরনো দাবি বাস্তবায়নের আবেদন।

 


জনাবা,
সবিনয় নিবেদন এই যে, তুমি তো জানই, ইয়ে, তোমাকে বিয়ে করার পর থেকে আমার জীবনের এক নতুন ক্যালেন্ডার ইয়ার শুরু হয়েছিল, এরপর কত ক্যালেন্ডার ইয়ার এলো-গেল, সেই বৈবাহিক ক্যালেন্ডার ইয়ার আর শেষ হল না! আমার জীবনটা যেন এক জ্বলন্ত ওভেন হয়ে গেছে, মানে কেক বানানোর ওভেন আর কি, চকোলেট কেকের মতো মিষ্টতায় ভরে গেছে আমার জীবন! আমার এই জ্বলন্ত জীবনটাকে ঠাণ্ডা করার জন্য এ বছর শীতটাও যখন ঠিকভাবে এলো না, তখন জীবনে কিছু শীতলতা আনার জন্য প্রতি বছরের মতো এ বছরও নতুন বছরের শুরুতে আমি কিছু সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধির জন্য বিনীতভাবে আগ্রহী-


– শপিংকালে ব্যাগের ওজনটা ২-৩ কেজি কোনোভাবে কমানো গেলে ভালো হতো আর কি।

– মূল বেতনের ১৫%-এর জায়গায় হাত খরচের জন্য ২০% বরাদ্দ করা হোক। আচ্ছা না থাক, ১৮%। আচ্ছা যাও ১৬%!

– এ বছর বিপিএল চলার সময় অন্তত টিভি রিমোট আমার হাতে দেয়া যায় কি না, বিবেচনা করলে কৃতজ্ঞ থাকতাম। গত পুরো বছরটাই বাংলাদেশী ইন্ডিয়ান সিরিয়াল দেখে কাটাতে হয়েছে। না মানে এ বছরও আমার তাতে আপত্তি নেই, জাস্ট বিপিএলের সময়টা আর কি যদি একটু ছাড় দেয়া সম্ভব হয়…

– আমার ফেসবুক অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ডটা এ বছর থেকে আমি নিজে চেঞ্জ করতে চাই। মানে আমিই চেঞ্জ করে না হয় তোমাকে জানালাম আর কি, তাও অন্তত চেঞ্জটা নিজে করি!

– রাতে বাসায় ফেরার চূড়ান্ত সময়সীমা রাত ১০টা থেকে বাড়িয়ে ১০.৩০ বা ১১টা করা গেল ভালো হয়। দুই-একদিন বিশেষ বিবেচনায় সময়সীমা পার হওয়ার পরও ঢুকতে দিলে বিশেষ কৃতজ্ঞ থাকতাম, গ্যারেজে ঘুমানো একটু বেশি কষ্টকর!

– পাশের বাসার ভাবির সঙ্গে শাড়ি-চুড়ি-গয়না, সিরিয়াল এবং বাচ্চাদের স্কুল এবং স্কুলের সহপাঠীদের সম্পর্কে গল্প-গুজবের সময়টা এ বছর অন্তত আরও ১০ মিনিট কমালে ভালো হয়। আগের বছরের আবেদনপত্রেও এমন আবেদন রাখা হলেও তা নামঞ্জুর করা হয়েছিল।


– ঝগড়ায় গত বছরের মতো এ বছরও চুপ থাকব। শুধু তোমার ওই রুটি বানানো বেলুনটা ছুড়ে মাইরো না প্লিজ!


– প্রতি মাসে পার্লারের খরচ কোনোভাবে যদি ১-২% কমানো যায়…


– ডায়েট কার্যে ব্যবহৃত দামি দামি ফলের জুস আর হাঁটার মেশিনের খরচ ১-২% কমানো গেলে একটু সুবিধা হয়। শসা-গাজর এগুলো মুখে ঘষার পাশাপাশি মাঝে মধ্যে খাবার হিসেবেও ব্যবহার করলে মন্দ হয় না।


– তোমার বান্ধবীর ছোটবোনের কাজিনের মেয়ের খালাতো বোনের দেবরের বিয়ের প্রোগ্রামগুলোতে মাঝে মধ্যে না গেলে হয় না? না, ঠিক আছে, গেলেও গিফটটা যদি একটু সস্তা কেনা যায়…

– রাতে ঘুমানোর সময়, সপ্তাহে অন্তত একদিন মশারিটা তুমি টাঙালে বিশেষ উপকার হয়।

– মাসে তিন রাত বন্ধুদের সঙ্গে বাইরে থাকার অনুমতি প্রার্থনা করছি। গত বছর একদিন থেকে বাড়িয়ে দুইদিন করা হয়েছিল।

– ছেলে বন্ধুদের অন্তত যেন ড্রয়িং রুম পর্যন্ত এলাউ করা হয়। আর মেয়ে বন্ধুদের যারা আমার বোনের মতো, তাদের সঙ্গে অন্তত ফোনে যোগাযোগ রাখার অনুমতি দেয়া হয়।

– টিভিতে রান্নার শো দেখে পরীক্ষামূলক রান্নাগুলো এ বছর একটু কমাতে মর্জি হয়। না হয় রান্না করলেই, গিনিপিগটা আমার বদলে কাজের বুয়াকে করলে উপকৃত হতাম।


– আর ইয়ে, আগের বছরের আবেদনপত্রগুলার মতো এইবারও বেশিরভাগ পয়েন্ট একটানে কেটে দিও না।


পরিশেষে বিনীত নিবেদন এই যে, হিন্দি এবং স্টার জলসার সিরিয়াল থেকে চোখ সরিয়ে উপরিউক্ত আবেদনগুলো বিবেচনায় এনে বাস্তবায়নে মনোনিবেশ করলে বাধিত হব।


বিনীত নিবেদক,

তোমার একান্ত বাধ্যগত স্বামী


(বিচ্ছু থেকে সংগ্রহ)

Skip to toolbar