ধর্ষণের শিকার গৃহবধু, স্বামী বের করে দিল ঘর থেকে, ধর্ষক কেটে দিল চুল

0
79

প্রথমে ধর্ষণ, তারপর মাথা ন্যাড়া। সম্প্রতি এমনই ঘটেছে রংপুরে। এক গৃহবধূকে (১৮) ধর্ষণের পর তার মাথার চুল কেটে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে ধর্ষক ও তার পরিবারের লোকজনের বিরুদ্ধে।
মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ওই গৃহবধূ বর্তমানে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে কোতয়ালি থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ধর্ষণের শিকার ওই নারীর স্বামী বাড়িতে না থাকার সুযোগে গত শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে প্রতিবেশী বন্দে আলী মিয়ার ছেলে হাসান আলী (২২) ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষণ করে। পরে এ ঘটনা জানাজানি হলে তাকে মারধর করে বাড়ি থেকে বের করে দেন স্বামী।

এদিকে বাড়ি থেকে বের করে দেয়ায় তিনি ওই রাতেই ধর্ষক হাসান আলীর বাড়িতে চলে যান। এসময় ধর্ষক হাসান ও তার স্বজনরা মিলে তার মাথার চুল কেটে দিয়ে মারধর করেন। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় রোববার তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ওই গৃহবধূ বর্তমানে হাসপাতালের ওয়ান স্টোপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় তার নানা আব্দুল হাকিম বাদী হয়ে মঙ্গলবার রাতে কোতয়ালি থানায় ধর্ষক হাসানসহ ৮ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে কোতয়ালি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাবুল মিয়া বলেন, বিষয়টি গুরত্ব সহকারে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
সারাদেশে দিন দিন ধর্ষণের ঘটনাগুলো বেড়েই চলছে। বাড়ছে ধর্ষণের পর অপ্রীতিকর ঘটনাগুলোও। বিষয়গুলোর দ্রুত বিচার না হলে এধরনের ঘটনা আরও বাড়তে বলে অভিমত বিশেষজ্ঞদের।

উৎসঃ আওয়ার ইসলাম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here