​ডঃ শাহদতকে নিয়ে মোহাম্মাদ এ আরাফাত ও আওয়ামীলীগের মিথ্যাচারের জবাব । 

0
163

ডঃ শাহদতকে নিয়ে মোহাম্মাদ এ আরাফাত ও আওয়ামীলীগের মিথ্যাচারের জবাব । 
বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার উপর গত শনিবার সর্বপ্রথম হামলা হয় ফেনীর মোহাম্মদ আলী বাজারে । আর এই হামলার নেতৃত্ব দেয় শশদী ইউনিয়ন ছাএলীগের সাধারণ সষ্পাদক ওসমান গনী রিয়েল যার ছবি ইতিমধ্যেই বিভিন্ন গনমাধ্যম ও অনলাইনে ভাইরাল হয়ে আছে । আর গতকাল আমার পোস্ট করা একটা ভিডিও থেকে প্রমানিত হয় মূলত এই হামলায় কার নির্দেশ ও তত্ত্বাবধায়ন ছিল । 

খালেদা জিয়ার গাড়ি বহর যখন ফেনী সার্কিট হাউজে পৌঁছে তখন দুপুরের খাবার খাওয়ার জন্য গনমাধ্যম কর্মিদের নিয়ে বিএনপি নেতা হাবিবুন নবী সোহেল ফেনীর লাল পোলে অবস্থিত স্থানীয় আরেক যুবদল নেতার রেস্টুরেন্টে যান, আর সেখানেই সাংবাদিকদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে ছাত্রলীগের আরেকটি বাহিনী । আর সেই হামলায় নেতৃত্ব দেয় সোনাগাজী উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক বর্তমানে সভাপতি রবিন চৌধুরী, বাহার ও আলম শাহিন। যাদের আইডি লিংক হল – 

১। https://www.facebook.com/robin.chowdhury.1276487

২। https://www.facebook.com/profile.php?id=100006377491788 
প্রথম ছবিটি দিয়ে নিউজ করেছিল যুগান্তর, সেখানে যুগান্তর উল্লেখ করেছিলো দুর্বিত্তদের হামলা যদিও পরবর্তিতে যুগান্তর সেই ছবি সরিয়ে নিয়ে যায় । যুগান্তরের সেই পোস্ট এর কাটিং প্রথম কমেন্টে দেওয়া হল । 

দ্বিতীয় ছবিটিতে দেখে থাকবেন, ছাত্রলীগের একটি ছেলে মোটা লাঠি দিয়ে যখন গাড়িতে আঘাত করতে যাবে তখন বাহার নামের ছেলেটি সেই লাঠিতে ধরে রেখেছে যাতে করে আঘাত না করা হয় । বাহারের এই ফিরিয়ে রাখাটার কারন হল রেস্টুরেন্টের মালিক ছিল বাহারের বড় ভাই মানিকের। যিনি স্থানীয় যুবদলের নেতা কিন্তু তাঁর ছোট ভাই বাহার যুবলীগের নেতা । 
প্রথম ছবির একেবারে ডানদিক থেকে দ্বিতীয় ছেলেটির নাম হল সোহাগ,যে আগে ছাত্রদলের কর্মি ছিল কিন্তু বর্তমানে সে ছাত্রলীগের কর্মি । হামলা পরবর্তি সময়ে সোহাগের সাথে হাবিবুন নবী সোহেল ভাইয়ের পুর্ব পরিচয়ের সুত্র ধরে তোলা একটি ছবি দিয়ে ( দ্বিতীয় কমেন্টে দেওয়া হল ) আওয়ামীলীগের মোহাম্মদ এ আরাফাত চট্রগ্রামের ত্যাগী বিএনপি নেতা ডঃ শাহাদাতকে জড়িয়ে মিথ্যে অডিও বানিয়ে তা প্রচার করছে, আরাফাত বুঝাতে চাইছে সোহাগের নেতৃত্বে হামলা হয়, আর সোহাগকে বিএনপি নেতা ডঃ শাহাদাত হামলার জন্যে ভাড়া করেন । অথচ সাংবাদিকদের উপর হামলার নেতৃত্ব দেয় রবিন চৌধুরী । যার ইতিহাস অনন্য ইতিহাস , যিনি ২০১৫ সালে এক প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে পরকিয়া করে সেই ভুক্তভোগী মহিলার ৮ লক্ষ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় । যার প্রমান এই লিংকে – 

http://www.newsmirror24.com/news/details/Politics/13421
আরাফাত রহমানের তৈরি অডিওতে ডঃ শাহাদাতের কণ্ঠের কোন মিল নেই জেনেও আওয়ামীলীগের শুয়ারের পালেরা সেটাকে সত্য বলে প্রচার করছে । 
অথচ এই বকচুদ আবালেরা জানেনা, সত্য লুকানো ততটা সহজ নয়, সত্য ঠিকই সকল শক্ত জাল ছিন্ন করে জনসম্মুখে বেড়িয়ে আসে তাঁর আসল রূপ ফুটিয়ে তোলার জন্যে ।
মেজর ডালিম 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here